কবিতার খাতা থেকে: শিবাশিস দত্ত | সকাল রয়

অভিযাত্রী সাহিত্য আয়োজনে প্রকাশিত হল কবি শিবাশিস দত্ত এবং সকাল রয়ের কবিতা

 

কুবাতাস 

শিবাশিস দত্ত 


ধরো, বুঝি কোনো পরিত্রাণ নেই 

কেবলই বিড়ম্বনা আছে 

দ্বিধাগ্রস্ত ফড়িং তবুও তো ছুটে যায় 

স্থিরচিত্ররূপী মাকড়সার কাছে 

সময় ঔরসহীন, ঘুমন্ত উটের কঙ্কাল 

ছুঁয়ে থাকে কল্পিত বধ্যভূমি 

অসম্পূর্ণ তেজ নিয়ে ছুটে যায় 

গুপ্ত অশ্বারোহী 

জটিল আবেগ–কিছুটা প্রশমিত হলে 

ভেসে ওঠে বোবা জিরাফের মুখ।

 

সাইকেল উড়িয়ে দাও 

ইট ভেবে তুলে নাও কবিতার বই 

কুবাতাস দূর হলে 

ঝরে যাবে রঙিন পতাকার মেদ।

 

সকাল রয়ের দুইটি কবিতা

দরজাহীন শহর


আমাদের একটা দরজাহীন শহর আছে
রতিকর্ম সেখানে ধর্ম ধরে হয়না, বর্ম ধরে হয়
         ঘরের ভেতর দেবতার ক্যালেন্ডার
         দেবতারা আমাদের ক্রীড়া দেখে, শহর ঘুরে-ঘুরে
শহরের পাশে আছে চন্দ্রসরোবর
সেখানে দেবতারা খেলা করে
স্বর্গ থেকে বিতারিত তারা
সুরাচার্যের অভিশাপে।
অবাধ্যলীলায় অভিশপ্ত হয়ে
এখন তারা দরজাহীন শহরের সাংযাত্রিক।

 

সকাল রায়ের কবিতা
সকাল রায়ের কবিতা

অসম্ভবের হাত ধরে


অসম্ভবের হাত ধরে টানি
উঠে আসে মৃতফুল,
     হারানো শব্দ,
          অচল নৃত্য
উঠে আসে না ঘৃতকাঞ্চন কিংবা একজন প্রমিলা

পকেট ভরতি চন্দ্ররাজ মুদ্রা নিয়েও-
ক্রয় করতে পারি না কান্নাশহর
দেয়ালের টিকটিকি বিদ্রুপ করে অষ্টপ্রহর
জানালায় জমা কথারস্তুপ আরও একবার শাসিয়ে যায়
ক্যালেন্ডারে ঝুলে থাকে অক্ষমতা

অসম্ভবের হাত ধরে
হেরে যাই অসম্ভবের কাছে

 

আরও কবিতা পড়ুন:

তাসনুভা অরিনের ৭টি কবিতা

নুসরাত নুসিনের কবিতা: আমরা দুজনে রক্তমর্মর ভাঁটফুল

 

Share this

Leave a Comment

error: Content is protected !!